Kivabe Bujhben Apnar Songi Porokiya Korche? ExtraMarital

আপনার সঙ্গী কি পরকীয়ায় মজেছেন? বুঝে নিন এই ৫টি লক্ষণে। একটা বিষয়ে হয়তো অনেকেই এক মত হবেন যে, সাধারণ প্রেমের গল্পের চেয়ে পরকীয়ার ‘মশলাদার’ গল্প অনেক বেশি মুখরোচক… অনেক বেশি আকর্ষণীয়(Interesting)! একই কারণে পরকীয়া সম্পর্কের প্রতি ঝোঁকটাও অনেক বেশি। তবে ইচ্ছে থাকলেও বিপদে পড়ার ভয়ে বা প্রতারিত হওয়ার আশঙ্কায় পরকীয়া সম্পর্কের ধারে-কাছেও ঘেঁষেন না অনেকেই। তবে তা সত্ত্বেও অনেকেই ঘটনাচক্রে জড়িয়ে পড়েন পরকীয়া সম্পর্কে। অনেকেই সম্পর্কের একঘেয়েমি কাটাতে জেনে শুনেই জড়ান পরকীয়ায়। কিন্তু কোনও সম্পর্কে দু’জনের মধ্যে একজন পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়লে অন্যজন ক্রমশ কোণঠাসা হতে থাকেন।পরকীয়ায়

আপনার সঙ্গী কি পরকীয়ায় মজেছেন?



মানসিক অবসাদ(Mental exhaustion), দুশ্চিন্তা, হতাশা, একাকিত্ব ক্রমশ তাঁকে গ্রাস করতে থাকে। অথচ, যতক্ষণ না পরকীয়ার কোনও প্রমাণ মিলছে, ততক্ষণ সঙ্গীকে সে ভাবে কিছু বলাও যায় না! কিন্তু কী ভাবে বুঝবেন আপনার সঙ্গী কোনও ভাবে কোনও পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছেন কিনা? আসুন চিনে নিন এমন ৫টি লক্ষণ যেগুলি দেখে বুঝবেন আপনার সঙ্গী পরকীয়ায় মজেছেন…

১) খেয়াল করে দেখুন তো, আপনার সঙ্গী কি আপনার দৈনন্দিন রুটিন সম্পর্কে আচমকাই অতিরিক্ত কৌতুহল(Curiosity) দেখাচ্ছেন? আপনি কখন বাড়ি ফিরবেন, কখন কোথায় বেরবেন ইত্যাদি ঘন ঘন জানতে চাইছেন? তাহলে বুঝতে হবে, তিনি আপনার নজর এড়িয়ে কোনও কিছু করতে চাইছেন। হতে পারে সেটা পরকীয়া সম্পর্ক।


২) যদি আপনার সঙ্গী হঠাৎ করেই নিজের সৌন্দর্য সম্পর্কে অতিরিক্ত সচেতন হয়ে ওঠেন, তাহলে বিষয়টি একটু চোখে চোখে রেখে দেখুন। যদি দেখেন আপনার সঙ্গী আচমকাই নিজের শরীরের গঠন, সাজ-পোশাক, সুগন্ধি ব্যবহারের ক্ষেত্রে একটু বেশিই নজর দিচ্ছেন, তাহলে বুঝতে হবে তিনি হয়তো কাউকে ‘ইমপ্রেস’ করতে চাইছেন। অনেকেই নিজেদের সম্পর্কের পুরনো টান ফিরিয়ে আনতে এমনটা করে থাকেন। তবে এমনটা পরকীয়া সম্পর্ক জড়ালেও হতে পারে।


৩) যদি দেখেন আপনার সঙ্গী আপনার সঙ্গে সঙ্গমে বা যৌন(Sexual) সম্পর্কের ক্ষেত্রে ক্রমশ উদাসীন বা উত্সাহ হারিয়ে ফেলছে তাহলে বুঝতে হবে সম্পর্কে কোনও সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। হতে পারে আপনার সঙ্গী কোনও পারিবারিক বা আর্থিক কোনও সমস্যার কারণে মানসিক চাপে রয়েছেন।


শারীরীক কোনও অসুস্থতার কারণেও এমনটা হতে পারে। তাই হয়তো আপনার সঙ্গী শারীরীক সম্পর্কের ক্ষেত্রে তেমন উত্সাহ বোধ করছেন না। তবে এমনটা কিন্তু পরকীয়া সম্পর্ক জড়ালেও হতে পারে। খেয়াল রাখবেন, আপনার সঙ্গী শুধুমাত্র অভ্যাস বশত বা আপনাকে সঙ্গ দিতেই সঙ্গমে অংশ নিচ্ছেন কিনা।


৪) সাম্প্রতিক কালে যদি কোনও নতুন নাম আপনার সঙ্গীর মুখে বার বার শোনেন, তাহলে একটু সতর্ক(Be careful) হওয়া জরুরি। খেয়াল করে দেখবেন, নতুন এই মানুষটির সম্পর্কে আপনার সঙ্গীকে আপনি কোনও প্রশ্ন করলে তিনি কি এড়িয়ে যাচ্ছেন? যদি তাই হয় তবে ব্যপারটা সন্দেহজনক! এমনটা পরকীয়া সম্পর্ক জড়ালেও হতে পারে। তবে পরকীয়া সম্পর্ক না জড়ালেও কারও ব্যক্তিত্বে, কাজে, কথা-বার্তায় অতিরিক্ত মাত্রায় প্রভাবিত হয়ে পড়লেও এমনটা হতে পারে।


৫) সঙ্গী যদি হঠাত্ করেই ফোন বা ইন্টারনেটে(Internet) ব্যাস্ত হয়ে পড়েন, যদি পরিবার বা বন্ধু-বান্ধবদের সঙ্গে থেকেও মাঝে মধ্যেই একটু একলা হতে চান, তাহলে তাহলে বুঝতে হবে, তিনি আপনার নজর এড়িয়ে বা পরিচিত সকলের নজর এড়িয়ে কোনও কিছু করতে চাইছেন। সঙ্গীর মধ্যে এমন সন্দেহজন আচরণ লক্ষ্য করলে তা পরকীয়া সম্পর্কের কারণেও হতে পারে।


এই প্রতিবেদনে উল্লেখিত লক্ষণগুলি পরিস্থিতি অনুযায়ী আলোচিত আশঙ্কা বা সম্ভাবনা মাত্র। উল্লেখিত লক্ষণগুলি অন্যান্য শারীরিক বা মানসিক চাপ(Stress) বা পরিস্থিতি বা কোনও সাময়িক আকর্ষণ জনিত করণেও হতে পারে।

তাই সম্পর্কের ক্ষেত্রে কোনও রকম দূরত্ব বা সমস্যা বোধ করলে সঙ্গীর সঙ্গে খোলামেলা আলোচনার চেষ্টা করুন। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে আলোচনার মধ্যমেই সম্পর্কের জটিলতা কাটিয়ে স্বাভিবিক ছন্দে ফেরা সম্ভব।

Previous Post Next Post

Contact Form