খুশকির সমস্যা দূর করবে নারকেল তেল Hair Dandruff Solution

খুশকির সমস্যা দূর করবে নারকেল তেল। যতই চুলের পরিচর্যা করুন, কিছুতেই পিছু ছাড়তে চায় না খুশকি(Dandruff)। শুধু শ্যাম্পু আর কন্ডিশনিং করে সে খুশকি সামাল দেওয়া মুশকিল, ফলে দরকার বিশেষ যত্ন। এতদিন স্পেশাল ড্যানড্রাফ ট্রিটমেন্ট করে যাও বা খুশকি(Dandruff) বশে থাকছিল, ইদানীং লকডাউনের সুবাদে পার্লারে তালা পড়ে যাওয়ায় সে সুবিধেটুকুও আপাতত অতীত! এদিকে খুসকিও ক্রমশ বেড়েই চলেছে! কীভাবে মুক্তি পাওয়া যায় এই সমস্যা থেকে?h,

Muktohasi.com Was Publish all This Topic Related Article. Wet Loss Ideas,Make u Shine Tips,Health tips,bd Health tips,Health ministry bd,Daily health tips,Health hotline bd,Baby health tips,হেলথ,Health tips bangla,dg health bd,department of health bd,Mental health tips and More Beauty Tips.


এমন প্রশ্ন হয়তো অনেকের মাথাতেই ঘুরছে, আর মুশকিল আসানও রয়েছে হাতের কাছেই! আপনার চিরপরিচিত নারকেল তেল(Coconut oil) দিয়েই সহজে কমিয়ে ফেলতে পারবেন খুশকি(Dandruff)। নারকেল তেলের ছত্রাক বিনষ্ট করার ক্ষমতা রয়েছে এবং তা চুলের গভীরে ঢুকে চুলের পুষ্টি জোগায় এবং যে কোনওরকম সংক্রমণ থেকে স্ক্যাল্পকে মুক্ত রাখতে পারে। তা ছাড়া নারকেল তেলের ছোঁয়া লেগে রুক্ষ, জৌলুসহীন চুলও আর্দ্রতা ফিরে পায়।

কীভাবে খুসকি তাড়াতে ব্যবহার করবেন নারকেল তেল? রইল হদিশ।

নারকেল তেল দিয়ে ডিপ কন্ডিশনিং
সহজেই চুলের গভীরে ঢুকে চুল মসৃণ কোমল করে তুলতে জুড়ি নেই নারকেল তেলের। কাজেই নারকেল তেল(Coconut oil) দিয়ে ডিপ কন্ডিশনিং করলে শুষ্ক স্ক্যাল্পের সমস্যা থেকেও মুক্তি পেতে পারেন আপনি। প্রথমে চুলটা শ্যাম্পু করে নিন, কন্ডিশনিং করবেন না। তারপর আধভেজা চুল(Hair) কয়েকটা ভাগে ভাগ করে হাতের পাতায় পরিমাণমতো নারকেল তেল নিয়ে স্ক্যাল্পে আর চুলে লাগাতে শুরু করুন। গোড়া থেকে আগা পর্যন্ত তেল লাগাবেন। তারপর শাওয়ার ক্যাপে চুল ঢেকে আধঘণ্টা অপেক্ষা করুন। হয়ে গেলে আর একবার ভালো করে শ্যাম্পু(Shampoo) করে নিন। চুলে তেলের অবশেষ যেন থেকে না যায়।

হট অয়েল মাসাজ
শুষ্ক স্ক্যাল্পই খুসকির প্রথম আর প্রধান কারণ। তা থেকে আপনাকে মুক্তি দিতে পারে নারকেল তেল দিয়ে অয়েল মাসাজ(Oil massage)। চুলের দৈর্ঘ্য অনুযায়ী নারকেল তেল নিয়ে হালকা গরম করে নিন। গরম তেলে আঙুল ডুবিয়ে পুরো স্ক্যাল্প মাসাজ করুন। অন্তত 10-15 মিনিট মাসাজ করতে হবে। খেয়াল রাখুন যেন পুরো মাথায় মাসাজ হয়। বাকি তেলটা চুলে মেখে নিন। আধঘণ্টা রেখে শ্যাম্পু আর কন্ডিশনিং(Conditioning) করে নিন।

নারকেল তেল আর লেবুর রস
লেবুর সাইট্রিক অ্যাসিড চুলের পিএইচ লেভেল বজায় রাখতে সাহায্য করে, স্ক্যাল্পকে সংক্রমণের হাত থেকেও বাঁচায়। নারকেল তেলের গুণের সঙ্গে লেবুর গুণ যুক্ত হলে খুশকি(Dandruff) পালাতে বাধ্য! দু’ টেবিলচামচ নারকেল তেলের সঙ্গে এক চাচামচ লেবুর রস(Lemon juice) মিশিয়ে নিয়ে তা স্ক্যাল্পে আর চুলে মেহে নিন। কয়েক মিনিট মাসাজ করুন, তারপর মিনিট কুড়ি ওভাবেই রেখে দিন। তারপর শ্যাম্পু করে নিলেই হল!

নারকেল তেল আর জোজোবা তেল
জোজোবার তেলের গঠন অনেকটা আমাদের মাথায় তৈরি হওয়া প্রাকৃতিক তেলের গঠনের মতোই! তাই শুষ্ক স্ক্যাল্প আর চুলে প্রাণ ফেরাতে জোজোবা অয়েল অনেকেই ব্যবহার করেন। স্ক্যাল্পে কোনওরকম সংক্রমণ(Infection) হলে তা কমাতে পারে জোজোবা অয়েল। ফলে শুষ্ক স্ক্যাল্পের কারণে যদি খুশকি হয়ে থাকে তা হলে চোখ বন্ধ করে বেছে নিন নারকেল তেল আর জোজোবা তেলের কম্বিনেশন। চুলের দৈর্ঘ্য অনুযায়ী সমপরিমাণে নারকেল তেল আর জোজোবা অয়েল(Jojoba Oil) একসঙ্গে মিশিয়ে নিয়ে মাথায় আর চুলে মাখুন। পুরো মাথায় তেল মাখা হয়ে গেলে শাওয়ার ক্যাপ দিয়ে চুলটা আধ ঘণ্টা ঢেকে রাখুন, তারপর শ্যাম্পু করে নিন। আপনার স্ক্যাল্প অয়েলি হলে কন্ডিশনার(Conditioner) লাগানোর দরকার নেই।

নারকেল তেল আর রোজমেরি অয়েল
খুসকির পাশাপাশি মাথায় বিশ্রী চুলকুনিও হচ্ছে? তা হলে নারকেল তেলের পাশাপাশি আপনার দরকার রোজমেরির তেল(Rosemary oil)। চার টেবিলচামচ নারকেল তেলের সঙ্গে পাঁচ-ছ’ ফোঁটা রোজমেরি অয়েল মিশিয়ে মাথায় ভালোভাবে মেখে নিন। তারপর আধঘণ্টা রেখে শ্যাম্পু করে ফেলুন। খুশকি আর চুলকুনি দুটোই পালাবে!

© All Rights Reserved
Made with Forhad Elahe